Increase Website Traffic: ওয়েবসাইটে ট্রাফিক বাড়ানোর গোপন কৌশল

Spread the love

যাদের Website অথবা blog রয়েছে তাদের একটাই চাওয়া কিভাবে ওয়েবসাইটে ট্রাফিক বাড়ানো যায়। আজকের এই প্রতিবেদনে এমন গোপন টিপস সম্পর্কে জানানো হবে, যেটা আপনি যদি আপনার Blog সাইট অথবা ওয়েবসাইটে ব্যবহার করেন, তাহলে ১ সপ্তাহের মধ্যে সেটির ফলাফল আপনি জানতে পারবেন। 

অর্থাৎ আপনি জানতে পারবেন কিভাবে ওয়েবসাইটে ট্রাফিক আনবেন। আপনার ওয়েবসাইটে অর্গানিক ট্রাফিক যদি না থাকে তাহলে আপনার পরিশ্রমটি বৃথা যাবে। এছাড়াও ট্রাফিক যদি না আসে তাহলে Income বা আয়ও হবে না। 

এজন্য আপনি যদি ব্লগিং থেকে আয় করতে চান এবং আপনার ওয়েবসাইটটি যদি গুগলে Rank করাতে চান এবং ভালো মানের ট্রাফিক আনতে চান তাহলে অবশ্যই আট্রিকেলটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়বেন। 

Website বা ওয়েবসাইটে ট্রাফিক কিভাবে বৃদ্ধি পাবে ?

আমরা অনেক সময় ফেসবুক অথবা ইউটিউবের অনেক ভিডিওতে দেখে থাকি তাদের ওয়েবসাইটে হাজার হাজার ট্রাফিক এবং ইম্প্রেশন আসছে। আপনিও যদি তাদের তো অধিক ট্রাফিক আনতে চান তাহলে নিচের দেওয়া কৌশল গুলো আপনার ওয়েব সাইটে প্রয়োগ করুন। দেখবেন ট্রাফিক আপনার সাইটে বৃদ্ধি পাবে।

১. ওয়েবসাইটে নিয়মিত কনটেন্ট পোস্ট  করুন

ট্রাফিক বৃদ্ধি পাবার গোপন একটি কৌশল হলো নিয়োমিত একই সময়ে এবং একই নিশের উপর কনটেন্ট আপলোড করা। অর্থাৎ প্রতিদিন বা রুটিন করে মিনিমাম একটি হলেও পোস্ট আপনার ওয়েব সাইটে করতে হবে। 

তাহলে Automatically আপনার ওয়েব সাইটটি গুগলের কাছে মূল্যবান সাইট হিসেবে গণ্য হবে। কারণ গুগলে বা আমাদের অ্যাডসেন্সে যারা কাজ করে তাদের Maximum রোবট। অর্থাৎ অ্যাডসেন্সের কাজ রোবট দিয়ে করা হয়। Robot প্রতিদিন একই সময় আপনার ওয়েব সাইট ভিজিট করতে আসে, তো ঐ সময় যদি আপনার ওয়েব সাইটের আপডেট একই সময়ে করেন তাহলে সেই পোস্ট গুলো গুগল বা রোবট Rank করিয়ে দেই। 

আর যদি নিয়োমিত পোস্ট না করেন তাহলে আপনার কনটেন্ট কখনোই গুগলে র‌্যাংক করবে না এবং ট্রাফিকও আসবে না। SEO করেও যদি পোস্ট করা হয় তবুও সাইট র‌্যাংক করবে না। এইট হলো এক নম্বার উপায় ওয়েব সাইটে ভিজিটর বাড়ানোর। এটি যদি নিয়োমিত এক সপ্তাহ করেন তাহলে এর মধ্যেই আপনার সাইট গুগলে র‌্যাংক করার সম্ভাবনা থাকবে। 

২. Google News Publisher বা গুগল নিউজ এপ্রুভ

আপনার ওয়েব সাইটে যদি গুগল নিউজ এপ্রুভাল না থাকে তাহলে যেই সমস্যাটি হবে সেটি হলো সাইটে পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গে সেই পোস্টটি গুগলে Index হবে না। 

গুগলে যদি পোস্ট Index না হয় আর আপনি যদি ভালো মানের কনটেন্ট লিখেন তাহলে সেখান থেকে আপনি কখনই অর্গানিক ট্রাফিক পাবেন না। এজন্য অবশ্যই গুগল নিউজ আপনার ওয়েব সাইটে এপ্রুভ করে রাখতে হবে। গুগল নিউজ এপ্রুভ করা থাকলে পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গে সেটি Index হয়ে যাবে। 

ধরুন আপনি একটি ভাইরাল Topic নিয়ে একটি পোস্ট লিখেছেন। আর ভাইরাল Topic গুলো এক থেকে দুই দিন থাকে। আপনার ওয়েব সাইটে যদি গুগল নিউজ এপ্রুভ না থাকে তাহলে পোস্টটি ইন্ডেক্স হতে সময় লাগবে, তত দিনে ভাইরাল নিউজটি চলে যাবে। 

কিন্তু যদি গুগল নিউজ এপ্রুভ করা থাকে তাহলে দ্রুত পোস্ট ইন্ডেক্স হয়ে যাবে এবং গুগলে পোস্টটি Rank করবে। তো এই একটি বিষয় যেটি অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটে করবেন। আপনার Row Website টি দ্রুত গুগলে ইন্ডেক্স হবে এবং সেখান থেকে ভালো মানের ট্রাফিক আপনি পাবেন। 

৩. Google Discover বা আবিষ্কার 

Google Discover বা আবিষ্কার এই অপশনটি থেকে আপনি প্রায় ৮০% অর্গানিক ট্রাফিক ওয়েবসাইটে নিতে পারবেন। অনেকেই গুগল ডিস্কোভার সম্পর্কে জানেন না। তাদের সুবিধার জন্য বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। 

কীভাবে Google Discover এর মাধ্যমে ট্রাফিক বৃদ্ধি করা যায়?

YouTube অথবা Facebook এর মাধ্যমে অনেক ভিডিও আপনি পাবেন যেখানে তারা এই বিষয়ে আলোচনা করেছে। 

তবে আমি আমার অভিজ্ঞতা আপনাদের সাথে Share করার চেষ্টা করবো। গুগল ডিস্কোভার বা Google Discover এর মাধ্যমে ট্রাফিক পাওয়ার মূল কারণ হলো Google Web Store (গুগল ওয়েব স্টোর)। 

গুগল ওয়েব স্টোর থেকে প্রচুর ট্রাফিক আসে। অনেক SEO এক্সপার্টরা এই বিষয়টি জানেনা। এখন প্রশ্ন হলো কীভাবে গুগল ডিস্কোভার অপশনটি আনবো?

কীভাবে Google Discover অপশন আনবো

আপনার যদি ব্লগ বা ওয়েবসাইট থাকে তাহলে আপনি প্রথমেই গুগলে ওয়েব স্টোর তৈরি করে করবেন। প্রতিদিন কমপক্ষে দুটি করে গুগল ওয়েব স্টোরেজ পাবলিশ করবেন। 

পাবলিশ করলেই আপনি দেখতে পারবেন এক সপ্তাহ বা ১০ দিনের মাথায় Automatically আপনার ওয়েবসাইটের Google Search Console (গুগল সার্চ কনসোল) এ Discover অপশনটি চলে এসেছে। 

এরপর আপনি যদি নিয়োমিত গুগল ওয়েব স্টোরে পোস্ট পাবলিশ করেন তাহলে Automatically আসতে আসতে দেখতে পাবেন অর্গানিক ট্রাফিক আপনার ওয়েব সাইটে আসা শুরু হয়ে গেছে। অনেকে শুরু করার পর ট্রাফিক না আসার কারণে কাজ কন্ধ করে দেই বা ওয়েব স্টোরেজ তৈরি করা বন্ধ করে দেই। তবে আপনি নিয়োমিত কাজ করে যাবেন। 

গুগলের অ্যালগরিদম হলো আপনার Sequence Maintain করা। যে কোনো কাজে আপনি নিয়োমিত পোস্ট করুন, নিয়োমিত ওয়েব স্টোর তৈরি করুন, SEO করুন, Backlink তৈরি করুন, এগুলো সবসময় গুগল একটি অ্যালগরিদমের মধ্যে রাখে। আপনার কাজ বা আপনার কনটেন্ট কি এটা বিষয় না। আপনি চেষ্টা করবেন যেই কাজটি নিয়োমিত করে আসছেন সেটি ধরে রাখার। গুগলে ডিস্কোভার বা গুগল ওয়েব স্টোর সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হলে ইউটিউবে ভিডিও দেখতে পারেন।

৪. সার্চ ইঞ্জিন যুক্ত করুন

বর্তমানে গুগলে অনেক সার্চ ইঞ্জিন রয়েছে যেগুলোতে আপনার ওয়েব সাইট যুক্ত করলে অরর্গানিক ট্রাফিক অটো বাড়বে। 

মেযন: Google Bing (গুগল বিং), ইয়াহু, গুগল সার্চ ইঞ্চিন, ইত্যাদি সার্চ ইঞ্জিনে সাইট যুক্ত করতে পারেন। সবথেকে বেশি ভিজিটর গুগল সার্চ ইঞ্জিন থেকে পাবেন। তবে এখান থেকে যদি বেশি ট্রাফিক পেতে চান তাহলে Google Search Console (গুগল সার্চ কনসোল) ভেরিফাই করে নিতে হবে। 

৫. Social Media (সোশ্যাল মিডিয়া)

অর্গানিক ট্রাফিক বাড়ানোর আরো একটি টিপস হলো সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট শেয়ার করা। অথাৎ আপনার ওয়েবসাইটের নামে Facebook Acount (ফেসবুক একাউন্ট), Twitter (টুউটার), ইত্যাদিতে একাউন্ট তৈরি করুন এবং সেখানে আপনার ওয়েব সাইট যুক্ত করুন। নিয়োমিত যেই পোস্ট গুলো আপনি সাইটে করবেন সেগুলো তৈরিকৃত একাউন্টে শেয়ার করুন। এখান থেকেও আপনি অর্গানিক ট্রাফিক পাবেন। 

৬. আকর্ষণীয় টাইটেল, ইমেজ, ডেসক্রিপশন

একটা সাধার বিষয় হলো ভিজিটর আপনার পোস্টটি তখনই ক্লিক করবে যখন তার কাছে শিরোনাম বা টাইটেলটা পছন্দ হবে। অর্থাৎ ভিজিটর যেই বিষয়ে জানতে আগ্রহী সেটা পোস্টের মধ্যে আছে কিনা। এছাড়াও একটা আকর্ষীণীয় Thimble Picture এড করুন। 

অবশ্যই পিকচার গুলো কপিরাট যেন না হয় সেদিকে লক্ষ রাখবেন। টাইটেলের নিচে যে ডেসক্রিপশন রয়েছে সেখানে গুরুত্বপূর্ণ কিছু শব্দ যুক্ত করে দিন, যেটা ভিজিটর বা ট্রাফিক বাড়াতে সাহায্য করে। এই তিনটি বিষয়ও অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি ওয়েব সাইটে অর্গানিক ট্রাফিক নিয়ে আসার জন্য। 

এতক্ষণ আমরা কীভাবে একটা Blogger বা ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের অর্গানিক ট্রাফিক বাড়ানো যায় এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করলাম। এখন দেখে নেওয়া যাক কিভাবে ট্রাফিক বা ভিজিটদের ধরে রাখা যায় এই সম্পর্কে। 

যদিও বিষয়টি একান্তয় আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার, যে কিভাবে আপনি ভিজিটরদের আপনার ওয়েব সাইটের মধ্যে ধরে রাখবেন। তবে আমি সংক্ষেপে আপনাদের জানিয়ে দিচ্ছি।

Website এ ভিজিটর ধরে রাখায় উপায়

ওয়েব সাইটে ভিডিটর ধরে রাখার বেশ কয়েকটি মাধ্যম রয়েছে তবে আমি আপনাদের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি মাধ্যম সম্পর্কে জানোর চেষ্টা করবো। 

ইউনিক কনটেন্ট পোস্ট করা

ইউনিক কনটেন্ট বলতে এখানে আমি কপিরাইট কনটেন্ট কে বুঝিয়েছি। আমরা অনেক সময় অন্যের লেখা আট্রিকেল নিজের ওয়েব সাইটে পোস্ট করি। 

এটি কাজটি কোনো ভাবেই করা যাবে না। আপনার কনটেন্ট ের এর মধ্যে নতুন নতুন তথ্য থাকতে হবে এবং এমন কিছু তথ্য দিতে হবে যেটা গুগলের কাছে নেই। অর্থাৎ যেই তথ্য গুলো ভিজিটরের জানা নেই। 

আকর্ষনীয় ছবি বা ভিডিও 

ভিজিটর ধরে রাখার জন্য আকর্ষনীয় ছবি বা ভিডিও তৈরি করুন। শুধু ব্লাগার ওয়েব সাইটের ক্ষেত্রেই নয় ইউটিউব, ফেসবুক, যে কোনো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিজিটরদের ধরে রাখার জন্য আকর্ষনীয় ছবি বা ভিডিও অনেক গুরুত্বপূর্ণ। তাই সাইটে আকষীনীয় ছবি বা ভিডিও যুক্ত করুন। যদিও ভিডিও ওয়েবসাইটে দিলে সমস্যা করে। তবে পিকচারের বিষয়টি লক্ষ রাখবেন। 

সাইটে কমেন্ট বক্স রাখা

একজন ভিজিটর ধরে রাখতে এই ছোট বিষয়টি বড় গুরুত্বপূর্ণ ভূমি রাখতে পারে। তাই ওয়েবসাইটে কমেন্ট বক্স রাখুন। 

আশা করি পুরো প্রতিবেদনটি পড়ে আপনি কীভাবে ওয়েবসাইটে অর্গানিক ট্রাফিক বাড়ানো যায়? এছাড়াও কিভাবে ভিজিটির ধরে রাখা যায় সেই তথ্যও সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। তবে, মূল কথা হল নিয়মিত কনটেন্ট দিতে হবে ও সেই কনটেন্ট গুলোকে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করে পাঠকদের নজরে আনতে হবে । 

Leave a Comment